বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২২nd সেপ্টেম্বর ২০১৫

ইনমাস, দিনাজপুর সদর হাসপাতাল ক্যাম্পাস, দিনাজপুর

ইনস্টিটিউট অব নিউক্লিয়ার মেডিসিন এবং এ্যালায়েড সায়েন্সেস, দিনাজপুর


১৯৮২ সালে দিনাজপুর সদর হাসপাতাল ক্যাম্পাসে তৎকালীন পরমাণু চিকিৎসা কেন্দ্র বর্তমানের ইনস্টিটিউট অব নিউক্লিয়ার মেডিসিন এবং এ্যালায়েড সায়েন্সেস প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রথম দিকে এই অঞ্চলের গলগণ্ড রোগের আধ্যিকের কথা বিবেচনা করে এই কেন্দ্র চালু হয়। পরবর্তীকালে এই ইনস্টিটিউট অত্র অঞ্চলের গলগণ্ড রোগের চিকিৎসা ব্যবস্থা ও এই রোগ প্রতিরোধে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে।
ইনস্টিটিউটে নিয়মিত দক্ষ জনবল এবং যন্ত্রপাতির মাধ্যমে তেজস্ক্রিয় আইসোটোপ প্রয়োগ করে Thyroid scanner and SPECT machine ব্যবহার করে Thyroid scan, Bone scan, Isotope Renogram, Renal scan এর মাধ্যমে, গলগণ্ড, অস্থিতে ক্যান্সার ও সংক্রমণ রোগের উপস্থিতি এবং কিডনি রোগ নির্ণয় করা হয়। এছাড়া প্রতিদিনই আল্ট্রাসনোগ্রাফির মাধ্যমে বিভিন্ন রোগ নির্ণয় করা হয়ে থাকে। ইনস্টিটিউটে অত্যন্ত অভিজ্ঞ জনবল ও যন্ত্রপাতির মাধ্যমে রক্তে বিভিন্ন ধরনের হরমোনের মাত্রা পরিমাপ করা হয়। এদের মধ্যে গলগণ্ড রোগের জন্য পরীক্ষা Serum T3, T4, TSH, FT3, FT4 এবং Tg উল্লেখযোগ্য।


রোগ নির্ণয়ের পাশাপাশি গলগণ্ড রোগ যেমন  হাইপোথাইরয়ডিজম, হাইপারথাইরয়ডিজম, থাইরয়েড ক্যান্সার প্রভৃতির চিকিৎসা অত্যন্ত সফলতার সাথে করা হয়ে থাকে। ২০০৯ হতে ২০১৫ জুন পর্যন্ত সময়কালে ইনস্টিটিউটে সর্বমোট ৪২,২৫৭ জন রোগীকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে।
চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি এখানে গবেষণা কার্যক্রমও পরিচালিত হয়ে আসছে। বিগত বছর গুলোতে এখানে যে সমস্ত গবেষণা কাজ হয়েছে তাদের মধ্যে Neonatal screening of Congenital Hypothyroidism, Thyroid status of population in greater Dinajpur, Thyroid status of school going children of greater Dinajpur উল্লেখযোগ্য। অত্র ইনস্টিটিউট থেকে দেশী বিদেশী জার্নালে ৩০ এর বেশী প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। ইনস্টিটিউটে MPhil এবং PhD-রত ছাত্রদের গবেষণায় সহায়তা করা  হয়ে থাকে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োলজিক্যাল ইনস্টিটিউটের ছাত্ররা এখানে তাদের গবেষণার কাজ করে থাকেন। এছাড়াও এখানে নিয়মিত দিনাজপুর মেডিকেল কলেজের ৩য় থেকে ৫ম বর্ষের ছাত্র-ছাত্রীদের নিউক্লিয়ার মেডিসিন বিষয়ে পাঠদান করা হয়ে থাকে।

ইনস্টিটিউট শুক্রবার ও সরকারী ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিন সকাল ৮.০০ ঘটিকা থেকে ২.৩০ ঘটিকা পর্যন্ত চিকিৎসা সেবা সেবা প্রদান করে।

 


Share with :
Facebook Facebook