বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৬

এনার্জি ইনস্টিটিউট

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন নতুন সহস্রাব্দের সমস্যা মোকাবেলায় তার উদ্ভাবনী শক্তির প্রতিশ্রম্নতি দিয়ে দৃঢ়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। শক্তি হলো টেকসই উন্নয়নের জন্য কৌশলগত যোগান এবং শক্তি নিরাপত্তার সমম্যাটি ব্যক্তিগত নিরাপত্তা, সামাজিক নিরাপত্তা ও আঞ্চলিক নিরাপত্তার মতই গুরুত্বপূর্ণ। এনার্জি ইনস্টিটিউট পরমাণু শক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সদ্য প্রতিষ্ঠিত ইনস্টিটিউট যাহা টেকসই শক্তি উৎপাদন গবেষনা, নবায়নযোগ্য ও অনবায়নযোগ্য উভয় প্রকার শক্তির ক্ষেত্রে আধুনিক ও টেকসই প্রযুক্তির বিকাশ এবং বিসত্মারের মাধ্যমে উপযুক্ত অবকাঠামো গড়ে তুলতে সদা সচেষ্ট থেকে ৩ এপ্রিল ২০০৮খৃ. থেকে কাজ করে যাচ্ছে।
এনার্জি ইনস্টিটিউটের রয়েছে বৈচিত্র্যময় ও বিসত্মৃত গবেষণা পরিকল্পনা এবং উনণয়ন কার্যক্রম যার প্রধান উদ্দেশ্য হলোঃ

•    শক্তি উৎপাদন সর্ম্পকিত বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষিত ও দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা।
•    স্ব-স্ব ক্ষেত্রে গবেষণা এবং উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রহণ ও উন্নয়ন।
•    কার্যকর এবং সাশ্রয়ী শক্তি উৎপাদনের জন্য আধুনিক ও টেকসই প্রযুক্তির বিকাশ সাধন।
•    হাইড্রোজেন এনার্জিসহ নবায়নযোগ্য উৎসের গবেষণা এবং উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করা ।
•    একাডেমিক কার্যক্রম যেমন এম.এস.সি., এম.ফিল., পিএইচ.ডি. গবেষনায় সহযোগিতা করা এবং যৌথ সহযোগিতার মাধ্যমে গবেষনা কার্যক্রম পরিচালনা করা।

 

নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ

এনার্জি ইনস্টিটিউট নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর ইঞ্জিনিয়ারিং সংক্রামত্ম উপযুক্ত অবকাঠামো ও দক্ষ জনশক্তি উন্নয়নকে সর্বাধিক অগ্রাধিকার প্রদান করে আসছে। এই ক্ষেত্রে গবেষকদের সর্বাধুনিক নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর টেকনোলজির সাথে সম্পৃক্ত রাখার লক্ষে নিম্নলিখিত কার্যক্রমসমূহ ইনষ্টিটিউটে চলমান রয়েছেঃ
•    নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টরের ইঞ্জিনিয়ারিং গবেষণায় রিঅ্যাক্টর ফিজিক্স ও সংশিষ্ট নিরাপত্তা বিশেস্নষণের উপর বিশেষ প্রাধান্য প্রদান।
•    নিউক্লিয়ার ফুয়েলের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি, ইন-কোর ব্যবস্থাপনা এবং ফুয়েল চক্র বিশেস্নষণ।
•    ফিশন প্রডাক্টের তালিকা অনুসন্ধানের জন্য উপযুক্ত পদ্বতি ও কৌশল উদ্ভাবন এবং নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টর ডিকমিশনিং সংক্রামত্ম গবেষণা।
•    লাইট ওয়াটার রিঅ্যাক্টরের ( LWR) থার্মাল হাইড্রোলিক্স ও সংশিস্নষ্ট নিরাপত্তা সূচক বিশেস্নষণের মাধ্যমে অধ্যায়নের জন্য একটি প্রটোটাইপ টেস্ট ফ্যাসালিটি স্থাপন।
•    আধুনিক রিঅ্যাক্টর সিমুলেটর ব্যবহার করে হাতে কলমে শিক্ষাদান।
•    নিউক্লিয়ার রিঅ্যাক্টরের সম্ভাব্য নিরাপত্তা অনুসন্ধান (PSA) বিষয়ক গবেষণা।
•    পরবর্তী প্রজন্মের নিউক্লিয়ার রিঅ্যক্টরের ডিজাইন ও নিরাপত্তা সংক্রামত্ম গবেষণা।
•    দুর্ঘটনাজনিত কারণে পরমাণু চুলিস্ন থেকে বিকিরণ নির্গমন সংক্রামত্ম গবেষণা।

ফিউশন প্লাজমা সংক্রান্ত গবেষণা

ইন্ড্রাস্টিয়াল, ডাস্টি এবং ফিউশন প্লাজমার তত্ত্বীয় এবং গণনামূলক গবেষণা - এনার্জি ইনস্টিটিউট প্লাজমার এবং ডাস্টি পস্ন¬াজমার ওয়েভস এবং ইন্সটাবিলিটিস এর উপর তাত্ত্বীয় এবং গণনামূলক গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। প্লাজমা উৎপাদন এবং উদ্ভাবন সংক্রামত্ম গবেষণাও এই গ্রম্নপের প্রধান অন্বেষণ। প্লাজমা বিশ্লেষণের জন্য এখানে কম্পিউটার কোডের উন্নতি সাধন করা হচ্ছে। প্লাজমা  যন্ত্রের নকশাকরণ, ক্ষুদ্রাকৃতির পস্ন¬াজমা যন্ত্রও ভবিষ্যত গবেষণার আকর্ষণীয় দিক।
প্লাজমা এ্যাসিসটেড সারফেস প্রযুক্তি - জাপানের শিজুওকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মিয়েনো ল্যাব এর সহিত এনার্জি ইনস্টিটিউটের বৈজ্ঞানিক সহযোগিতা চুক্তির মাধ্যমে প্লাজমা এ্যাসিসটেড সারফেস প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠিা ও বিকাশের লক্ষ্যে একটি ল্যাবরেটরি স্থাপন করা হচ্ছে, যার প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে ধাতব বস্ত্তর সারফেস কোটিং (সিভিডি, পিভিডি ইত্যাদি) এবং কোটিং মূল্যায়ন (পূরম্নত্ব, কাঠিন্য পরিমাপ ইত্যাদি)। স্থানীয় পরিবেশের বিরম্নপ আক্রমন থেকে বস্ত্তর অংশকে রক্ষা করার জন্য সারফেস কোটিং খুবই কার্যকর। পাতলা এবং শক্ত ফিল্ম কোটিং কৃষি, শিল্প কারখানা এবং চিকিৎসা ক্ষেত্রে সচরাচর ব্যবহৃত বিভিন্ন রকম যন্ত্রপাতির কার্যক্রম এবং কর্মক্ষমতা বাড়াতে পারে। কৃষকেরা সাধারণত লোহার তৈরী  কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে যা খুব স্বল্পাযু এবং অত্যমত্ম ক্ষয়শীল। চিকিৎসা সামগ্রী এবং শিল্প কারখানার যন্ত্রপাতি প্রধানত বিদেশ থেকে উচ্চ মূল্যে আমদানী  করা হয়। সুতরাং এনার্জি ইনস্টিটিউটে সারফেস কোটিং ফেসিলিটি বিকশিত হলে এর মাধ্যমে বাংলাদেশের জনগণের জন্য কম মূল্যে সেবা প্রদান করা সম্ভব হবে, উপরন্তু তা প্রযুক্তি এবং জ্ঞানার্জনের ক্ষেত্রে খুবই সহায়ক হবে।

নবায়নযোগ্য শক্তি গবেষণা

একাধিক স্ফটিকাকার সিলিকন ফটোভোল্টায়িক (পিভি) সৌরসেল এবং মডিউল তৈরীকরন - সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকার সৌর শক্তি থেকে সম্ভাব্য সর্বোচ্চ পরিমান বিদ্যুৎশক্তি উৎপাদনের জন্য একটি ক্র্যাশ প্রোগ্রাম গ্রহণ করেছে। গৃহস্থালীর বিদ্যুতায়নের জন্য বিশেষ করে দেশের গ্রাম অঞ্চলে সৌর প্যানেল খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এবং অনেক বাড়ীতে ব্যবহৃত হচ্ছে। বর্তমানে সব সৌর প্যানেল বিদেশ থেকে আমদানী করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে এনার্জি ইনস্টিটিউট পিভি বস্ত্ত উৎপাদন, প্রসেসিং প্রযুক্তি সেল এবং মডিউল নকশাকরণ এবং বানিজ্যিকিকরণের লক্ষ্যে ব্যাপক গবেষণা ও উন্নয়ন কার্যক্রম চালানোর প্রয়াস গ্রহণ করেছে। এখানে পিভি বস্ত্ত তৈরী এবং প্রসেসিং প্রযুক্তি সংক্রামত্ম মৌলিক গবেষণা করা হচ্ছে যাতে সৌর সেলের ডিজাইন অপটিমাইজেশনের মাধ্যমে কম মূল্যে এবং অধিকতর ক্ষমতার সৌর সেল তৈরী করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা সম্ভব হবে। অধিকমত্ম, স্ফটিক আকার সিলিকন সৌর সেল এবং মডিউল তৈরীর ব্যাপারেও গবেষণা কার্যক্রম চালানোর চিমত্মাভাবনা চলছে যা উৎপাদন পদ্ধতিরর সহজীকরণের উপর নির্ভর করে এক অথবা একাধিক স্ফটিক আকারের হতে পারে। বিশুদ্ধ সিলিকন ইনগট উৎপাদনের জন্য মৌলিক সিলিকন ডাই অক্সাইড প্রসেসিং, সটিং এবং ইচিং, ডোপিং, কোটিং, মডিউল প্যানেল তৈরীকরণ, যন্ত্রপাতির সংগে সংযোজন ইত্যাদি সংক্রামত্ম একটি গবেষণা প্রজেক্ট শুরম্নর পরিকল্পনা করা হচ্ছে। যা প্রথম পর্যায়ে ল্যাবরেটবী স্কেলে শুরম্ন করে পরবর্তীতে কমার্শিয়াল স্কেলে পরিচালনা করা হবে। এ ছাড়াও ঘনকৃত সৌরশক্তি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য পস্ন¬ান্ট তৈরী করার প্রচেষ্টাও অব্যাহত আছে।

 


Share with :